লৌহ যুগ/ সত্যেন্দ্রনাথ পাইন

আমরা বাঙালিরা এখন সেই সত্তর দশকের স্বর্ণ যুগ

পেরিয়ে এসেছি।গান, সুর, অভিনয়, কাব্য-কবিতা, শিক্ষায় যখন আমরা স্বর্ণযুগে ছিলাম। শিক্ষক মর্যাদা পেতেন, ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে ছিল নির্ভেজাল অহিংস শিক্ষা পিপাসু অনুসন্ধিৎসা ‌। মাধুর্য ছিল, মহীমা ছিল, অন্তরঙ্গতা ছিল। ছিল ভাষাজ্ঞান। ছিল কাব্যিক গঠন।

.

.

  এখন গদ্য কবিতায় ছন্দ লয় রীতি দুঃসাহসিক দুর্বোধ্য—- লৌহ কঠিন। চারিদিকে এখন প্রচুর লেখালেখি চলছে। এখানে ওখানে সেখানে, যখন তখন কারণে অকারণে “কবি সম্মেলন” বা “সাহিত্য সভা”অনুষ্ঠিত হচ্ছে !ভাবটা হোল—- সমস্ত জঞ্জাল গুলো একজায়গায় জড় করা ! 

.

.

       দুর্বোধ্য নির্ভেজাল। শুধুই পারিতোষিকের মাত্রাতিরিক্ত দুরমুশ আর মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ফ্রেমবন্দি করার আকুল উদ্দীপনা। সাহিত্যের নাম গন্ধ রসটস নেই; নিংড়লেও বেরুবে না। শুধুই শব্দের যেন রামধনু —বিস্তার নেই। শ্লেষ নেই; উপজীব্যতা নেই। লয় ছন্দ রীতি তো একেবারে পটুয়াটোলায় নিবদ্ধ! হতাশা বা নেগেটিভিটি নয়;আবেদন— যেন লৌহ যুগের প্রেমাস্পদ।

.

.

    চাই ভালো কিছুর সুখানুভূতি। চাই ভোরের শিশির। চাই নারীদেহের সঙ্গে কামুক পুরুষের যৌনাকাঙ্খা ব্যতীত ভালোবাসার এক আকাশ মুগ্ধতা। লৌহ যুগ অতিক্রম করে স্বর্ণযুগে ফিরে যাওয়া।

.

.

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: