লৌহ যুগ/ সত্যেন্দ্রনাথ পাইন

13

আমরা বাঙালিরা এখন সেই সত্তর দশকের স্বর্ণ যুগ

পেরিয়ে এসেছি।গান, সুর, অভিনয়, কাব্য-কবিতা, শিক্ষায় যখন আমরা স্বর্ণযুগে ছিলাম। শিক্ষক মর্যাদা পেতেন, ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে ছিল নির্ভেজাল অহিংস শিক্ষা পিপাসু অনুসন্ধিৎসা ‌। মাধুর্য ছিল, মহীমা ছিল, অন্তরঙ্গতা ছিল। ছিল ভাষাজ্ঞান। ছিল কাব্যিক গঠন।

  এখন গদ্য কবিতায় ছন্দ লয় রীতি দুঃসাহসিক দুর্বোধ্য—- লৌহ কঠিন। চারিদিকে এখন প্রচুর লেখালেখি চলছে। এখানে ওখানে সেখানে, যখন তখন কারণে অকারণে “কবি সম্মেলন” বা “সাহিত্য সভা”অনুষ্ঠিত হচ্ছে !ভাবটা হোল—- সমস্ত জঞ্জাল গুলো একজায়গায় জড় করা ! 

       দুর্বোধ্য নির্ভেজাল। শুধুই পারিতোষিকের মাত্রাতিরিক্ত দুরমুশ আর মোবাইল ফোনের ক্যামেরায় ফ্রেমবন্দি করার আকুল উদ্দীপনা। সাহিত্যের নাম গন্ধ রসটস নেই; নিংড়লেও বেরুবে না। শুধুই শব্দের যেন রামধনু —বিস্তার নেই। শ্লেষ নেই; উপজীব্যতা নেই। লয় ছন্দ রীতি তো একেবারে পটুয়াটোলায় নিবদ্ধ! হতাশা বা নেগেটিভিটি নয়;আবেদন— যেন লৌহ যুগের প্রেমাস্পদ।

    চাই ভালো কিছুর সুখানুভূতি। চাই ভোরের শিশির। চাই নারীদেহের সঙ্গে কামুক পুরুষের যৌনাকাঙ্খা ব্যতীত ভালোবাসার এক আকাশ মুগ্ধতা। লৌহ যুগ অতিক্রম করে স্বর্ণযুগে ফিরে যাওয়া।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *