রঞ্জন সানি দুই বন্ধুর funny এবং sugar free jindegi চলছে

  রঞ্জন মন্ডল

রঞ্জন এর সাথে সানির হঠাৎ দেখা।  সানি : কি বে কেমন আছিস? রঞ্জন: ওই লবণ  ছাড়া তরকারির মতো লাইফ এর কোন স্বাধ নাই। তুই কেমন আছিস রে  ? সানি: আমি ও চিনি ছাড়া চায়ের মতো sugar free jindegee  চলছে , রঞ্জন আজ একটু কেলো হয়ে গেছে ।   রঞ্জন: কি হয়েছে রে ? সানি : আমার gf আমাকে বললো আমি তোমাকে ছাড়া বাঁচতে পারব না।
রঞ্জন : তুই কি বললি। সানি: আমি তোমাকে ছাড়া বাঁচতে পারব কিন্তু অক্সিজেন ছাড়া বাঁচতে পারব না তাই গাছ লাগাও প্রান বাঁচাও আর আমাকে ভুলে যাও।  রঞ্জন : সাবাস সানি সাবাস।সানি: কি রে রঞ্জন তোকে একটু আগে একটা মেয়ের সাথে কথা বলতে দেখলাম রঞ্জন :
আর বলিসনা   সানি: কে ওই মেয়ে টা রঞ্জন : তুই তো কেলো করে দিয়েছিস আমি কেলোর কীর্তি করে দিয়ে চলে এলাম      সানি: কি কেলোর কীর্তি বে      রঞ্জন: বলছি শোন    সানি : বল  রঞ্জন: প্রথমে মেয়েটার নাম জিজ্ঞেস করলাম বললো না কিছুতেই  তখন propose করলাম direct বলে দিলাম I love you
মেয়ে: I hate you
আমি:আরে তুমি তো আমাকে আগেও বলেছো যে ভালোবাসি
মেয়ে: কই কোথায় কবে কখন বলি তোমায়?
আমি: আরে যে দিন I love India বলেছিলে সেইদিন আমি India র মধ্যেই ছিলাম India ar বাইরে যাইনি আর আমাকে বাদ দিয়ে তো বলোনি ।
মেয়ে তো অবাক হয়ে গেছে এখন মনে হয় মেয়েটা I love India বলার আগে আমার কথা ভাবে।
 সানি: তুই যেভাবে প্রোপজ করলি তোর কথা না ভেবে থাকতে পারবেনা আমকেউ একটু আধটু শিখিয় দিস   রঞ্জন : তুই মেয়ে টা কে চিনিস সানি: হুঁ  রঞ্জন: তুই চিনলি কি করে  সানি : Facebook এ friend আছে তা ছাড়া এই রাস্তা দিয়েই school যাই মেয়ে টা নাম রিয়া   রঞ্জন : ও    সানি : শোন না বে রঞ্জন  রঞ্জন: বল না শুনেছি  তো।
সানি : ওই মেয়ে টা ফেসবুকে ওর একটা ছবি সেলফি তুলে আপলোড করছে আমি কমেন্ট দিয়ে দিলাম wow wonderful  Ripley comment এ  thanks বললো ঠিক আছে কিন্তু কিছু দিন আগে মেয়ে টা school যাচ্ছিল সাইকেল নিয়ে আর দূর্ভাগ্য বশত সাইকেল এর চেইন এর সাথে ওড়না টা আটকে যায় কিছুতেই ছাড়াতে পারছেনা ।
আমি সেই সময় রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম bank কাজ ছিল মেয়ে টা আমাকে ডাকলো আমি গেলাম  দেখলাম যে এই অবস্থা তার আমি অনেক চেষ্টা করে অনেক কষ্টে কোনোরকমে ওড়না ছাড়ালাম প্রায় 20 মিনিট লাগলো  তারপর মেয়ে টা কোন কিছু না বলে চলে সেই যাচ্ছে আমি ও ওকেই thanks বলে দিলাম লজ্জা আর দাঁড়ালো না এখানে।
আমি একটা কথা ভেবেই পাচ্ছি না ফেসবুক এ আমি কি উপকার করলাম যে thanks বললো আর যেখানে বলার দরকার সেখানে চুপ করে রইলো    রঞ্জন : সানি  দেখ কার উপকার করবি করে যাবি ঠিক আছে কিন্তু কিছু পাওয়ার আশা করিস না এমনকি thanks পর্যন্ত না। সানি : হুঁ রে সেটা ই তো দেখছি digital India তাই সব ডিজিটাল ভাবে thanks জানাচ্ছে।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: