মনে জন্ম 

মাধব মন্ডল

একটা মন থেকে আরেকটা,আরেকটা থেকে আরো একটা,এভাবে জন্ম নিতে নিতে মনের জঙ্গল!
তোমার ঠোঁটকে পাকাতে সময় চেয়েছিলে,অথচ পুরুষ্ট হবার পর বলছো ওটা আমার নয়,হায়,হায়!
তাহলে দাঁড়াল এই,পাকা কলার বদলে পাই একটা আস্ত ক্যাঁচকলা,অতএব গঙ্গা জলে তাকে করি পাকা!
তোর ঠোঁট তুই রাখ,আমি বরং আঙুর ফল টক বলি আর ঘুম ঘুম ভাব আনি,সমাধি যাই।
গাল খাই নিজে নিজে,নরম মাটি,অঘ্রাণের ধানের গাদা,মোরগ মানুষের হাঁক,জলপাই ভরা গাছ,থিকথিকে ভীড়, বিপর্যস্ত লাগছে।
মিয়ানো মানুষের মত পিপাসা চাপি,মোচ্ছবে টান নেই,এত কথা, তোর ঠোঁট একে ন্যাকামি বলে, দূরছাই ছোঁড়ে,ব্যঙ্গরা কপালে এল।
এটার উৎস দেখি,সেই ঘ্যান ঘ্যান,  প্রসাদ এনে দাও মা, চড়েও যা যায় নি,হায়,সেই একলা মন, গলা,পা আজও কাঁপে।
আজও কাঁপি, মন থেকে মনে আশ্রয় খোঁজা সার,আহা,তুই কি করে বুঝলি  ? দেওয়াল তুললি জোর,ঠিক তুই ঠিক তুই,আমি তো গুমোট হাওয়া।
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: